Post upper

৭২ ঘণ্টা কর্মবিরতিতে যাচ্ছে কুমিল্লাসহ সারাদেশের ট্রাক-কাভার্ডভ্যান-প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন

৭২ ঘণ্টা কর্মবিরতিতে যাচ্ছে কুমিল্লাসহ সারাদেশের ট্রাক-কাভার্ডভ্যান-প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিকরা

sidebar

১৫ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ৭২ ঘণ্টা কর্মবিরতির ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান, প্রাইমমুভার পণ্যপরিবহন মালিক এসোসিয়েশন। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর ভোর ৬টা পর্যন্ত ৭২ ঘণ্টা সব ধরনের পণ্যবাহী যানবাহন চলবে না বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে প্রচার করা হচ্ছে।
বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান, প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক এসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, এ কর্ম বিরতিকে সমর্থন জানিয়ে কুমিল্লাসহ দেশব্যাপি লিফলেট ও প্রচারণা চালানো হচ্ছে।এসোসিয়েশনের ১৫ দফা দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো-মোটরযান মালিকদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া বর্ধিত আয়কর অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। যেসব চালক ভারি মোটরযান চালাচ্ছে তাদের সবাইকে সহজ শর্তে এবং সরকারি ফির বিনিময়ে লাইসেন্স প্রদান করতে হবে। ড্রাইভিং লাইসেন্সের নবায়ন ক্ষেত্রে পুনরায় হয়রানিমূলক ফিটনেস ও পরীক্ষা পদ্ধতি বাতিল করতে হবে।
পণ্য পরিবহন খাতের সরকার নিবন্ধিত শ্রমিক ইউনিয়নগুলোর কল্যাণ তহবিল সংগ্রহের ওপর কোনো অজুহাতে বিধিনিষেধ আরোপ করা চলবে না। চট্রগ্রাম প্রাইমমুভার ট্রেইলার শ্রমিক ইউনিয়নের প্রস্তাবিত সুপারিশগুলো অবিলম্বে বাস্তবায়ন করতে হবে। সকল শ্রেণির মোটরযানে নিয়োজিত শ্রমিকদেরকে রাষ্ট্রীয় রেশন সুবিধার আওতায় আনতে হবে। সকল বন্দরে অবস্থিত ট্রান্সপোট এজেন্সির মনোনীত প্রতিনিধি এবং সকল ড্রাইভার ও সহকারীকে বন্দরে হয়রানিমুক্ত প্রবেশের সুবিধার্থে বার্ষিক নবায়নযোগ্য বায়োমেট্রিক স্মার্টকার্ড প্রদান করতে হবে।
দেশের সব বন্দর হতে আমদানিকৃত পণ্য লোডের সময় অথবা লোডের পর অবৈধ পণ্যের তথ্যভিত্তিক প্রশাসন কর্তৃক কোনো ট্রাক আটক বা ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা যাবে না। গাড়ির কাগজপত্র চেকিংয়ের জন্য নির্দিষ্ট স্থান নির্ধারিত করতে হবে। গাড়ির যত্রতত্র চেকিং করা যাবে না। পুলিশের ঘুষ বাণিজ্যসহ সকল প্রকার হয়রানি ও নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।
প্রতি ৫০ কিলোমিটার পর পর পণ্য পরিবহনের শ্রমিকদের জন্য দেশের সড়ক ও মহাসড়কে বিশ্রামাগার ও টার্মিনাল নির্মাণ করতে হবে। সড়ক দুর্ঘটনায় বা চোর ডাকাতদের হাতে অথবা আইনশৃখলা বাহিনীর হেফাজতে মৃত্যুবরণকারী সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের পরিবারকে রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে এককালীন ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।
বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান,প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক এসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, ইতিপূর্বে এসব দাবি নিয়ে সরকারপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। তবে সেখান থেকে সাড়া না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে দাবি আদায়ে কর্ম বিরতির ডাক দেয়া হয়েছে।

post Down
আরো পড়ুন
After related Post